টরেন্ট ফাইল ডাউনলোড করার জনপ্রিয় পাচঁটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস

আমরা প্রায় সময় ল্যাপটপ বা পিসি দিয়ে টরেন্ট থেকে মুভি বা অন্যান্য ফাইল ডাউনলোড করি কিন্তু বর্তমানে অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের কল্যাণে আমরা টরেন্ট ফাইল মোবাইলেও ডাউনলোড করতে পারি। এখন আমি আপনাদেরকে পাচঁটি টরেন্ট অ্যাপস এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিব, যেগুলো দিয়ে আপনি সহজেই টরেন্ট ফাইল নামিয়ে দেখতে পারবেন...

১. BitTorrent® – Torrent App for Android: 

টরেন্ট ডাউনলোড করার সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাপস হচ্ছে BitTorrent®। এই অ্যাপসটি BitTorrent® এর অফিসিয়াল অ্যাপস। অ্যাপসটি একদম ফ্রি এবং এতে কোন স্পিড লিমিট বা ডাউনলোড সাইট লিমিট করা নেই। অ্যাপসটির ডিজাইন অত্যন্ত চমৎকার যা আপনি ব্যবহার করলেই বুঝতে পারবেন।

২. aTorrent

টরেন্ট ডাউনলোড করার জন্য অ্যাপসটিও অত্যন্ত জনপ্রিয়। এই অ্যাপসের সার্চ বক্সে সার্চ করে আপনি বিভিন্ন টরেন্ট ফাইল ডাউনলোড করতে পারবেন। অ্যাপসটির বিশেষ সুবিধা হচ্ছে আপনার মোবাইলের যখন ব্যাটারি লো হয়ে যাবে তখন আপনি ডাউনলোডেড ফাইল Pause দিয়ে দিলে পরবর্তীতে আবার ফাইলটি ডাউনলোড করতে পারবেন।



৩. tTorrent

টরেন্ট ডাউনলোড করার জন্য এটিও একটি ভাল অ্যাপস। আবার এই অ্যাপস দিয়ে টরেন্ট ডাউনলোড এর জন্য একটু হাই স্পিড এর নেট কানেকশন লাগে। যেমন: WiFi, 3G, 4G। অ্যাপসটি ব্যবহার করলেই বুঝতে পারবেন বলার মত কিছু নেই..



৪. aDownloader:

টরেন্ট ফাইল ডাউনলোড করার জন্য চমৎকার অ্যাপস গুলোর মধ্যে এটি অন্যতম একটি অ্যাপস। এই অ্যাপসে ডাউনলোডকৃত ফাইলকে রিজিউম করার অপশনও আছে। এর ভাল দিকটি হল আপনি ডাইরেক্ট টরেন্ট সাইটে ঢুকে কোন ফাইল ডাউনলোড করার জন্য শেয়ার লিংক দিলে এটি অটোমেটিক ফাইলটি ডাউনলোড করা শুরু করবে।

৫. Vuze:

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস গুলোর ব্যবহারের মধ্যে সবচেয়ে সহজ অ্যাপস হচ্ছে এই অ্যাপসটি। আপনি কোন একটা টরেন্ট ফাইল সার্চ করলে তা এক ক্লিকে ডাউনলোড করতে পারবেন। কোন ফাইল ডাউনলোড হয়ে গেলে তা আপনাকে জানিয়ে দিবে এবং ডাউনলোড হওয়া অবস্থায় যদি ফোন বন্ধ হয়ে যায় তাহলে যেখান থেকে বন্ধ হয়েছে সেখান থেকে আবার ডাউনলোড হওয়া শুরু হবে।



কৃতজ্ঞতাঃ সাইফুল্লাহ আরাফাত


কমেন্ট করার জন্য ধন্যবাদ। Conversion Conversion Emoticon Emoticon